বৃহস্পতিবার

১৮ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

৫ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজশাহী জেলা পরিষদ নির্বাচনে নিয়ে মীর ইকবালের মতবিনিময়

Paris
Update : রবিবার, ২ অক্টোবর, ২০২২

প্রেস বিজ্ঞপ্তি
আগামী ১৭ অক্টোবর রাজশাহী জেলা পরিষদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় পরিষদের সদস্য ও রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল-এঁর কাপ-পিরিচ প্রতীকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করার লক্ষে গতকাল রবিবার গোদাগাড়ী উপজেলার কাকনহাট পৌরসভা, দেওপাড়া, রিশিকুল ও মাটিকাটা ইউনিয়ন পরিষদ, বাগমারা উপজেলার যোগীপাড়া, হামিরকুৎসা, গোয়ালকান্দি, শুভডাঙ্গা ও গোবিন্দপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ, তানোর উপজেলার কামারগাঁ, সরনজাই, তালন্দ ও কলমা ইউনিয়ন পরিষদ, পবা উপজেলার বড়গাছি ও পারিলা ইউনিয়ন পরিষদ এবং দূর্গাপুর উপজেলার জয়নগর ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচনী মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় বক্তারা বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনা মনোনীত রাজশাহী জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবালকে কাপ পিরিচ প্রতীকে ভোট দিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা’র চলমান উন্নয়ন কর্মসূচী এগিয়ে নিতে হবে। বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে উপজেলা পরিষদ, ইউনিয়ন পরিষদ ও পৌরসভার মেয়রবৃন্দদের সাথে আলোচনা করে তাদের মতামতের সমন্বয় ঘটিয়ে জেলা পরিষদের কার্যক্রম পরিচালিত করা হবে। আর এর মধ্যে দিয়েই জেলা পরিষদকে দায়িত্বশীল, সেবামূলক ও গতিশীল প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তোলা হবে।

এ সময় উপস্থিত উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যানবৃন্দ, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও সদস্যবৃন্দ, নেতৃবৃন্দকে প্রতিশ্রুতি দিয়ে বলেন, আগামী ১৭ অক্টোবর বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল কাপ পিরিচ প্রতীকে তাদের সমর্থন জানিয়ে বিপুল ভোটে নির্বাচিত করার জন্য একসাথে কাজ করার জন্য তারা তাদের প্রয়োজনীয় সকল কিছুই করবেন। তারা বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে আমরা আমাদের উপজেলা, পৌরসভা ও ইউনিয়নের উন্নয়ন হবে বলে বিশ্বাস করি।

মতবিনিময় সভাগুলোতে সভাপতিত্ব করেন যথাক্রমে কাকনহাট পৌরসভার মেয়র এ কে এম আতাউর রহমান খাঁন, দেওপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বেলাল উদ্দিন সোহেল, রিশিকুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম, মাটিকাটা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সোহেল রানা, যোগীপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাজেদুল হক সোহাগ, হামিরকুৎসা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন, গোয়ালকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলমঘীর হোসেন, শুভডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন, গোবিন্দপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান, বড়গাছি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাহাদৎ হোসেন সাগর, পারিলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাঈদ আলী, জয়নগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিজান।

বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, রাজশাহী মহানগরের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল, সাধারণ সম্পাদক মোঃ ডাবলু সরকার, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জাকিরুল ইসলাম সান্টু, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ আহসানুল হক পিন্টু, বাগমারা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক উপদেষ্টা বীর মুক্তিযোদ্ধা বীরেন্দ্রনাথ সরকার, তানোর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ প্রদীপ সরকার, গোদাগাড়ী উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ. কে. এম আসাদুজ্জামান, এ্যাড মোঃ আব্দুস সামাদ ও আলফোর রহমান।


আরোও অন্যান্য খবর
Paris