রবিবার

৩রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

১৯শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বিশ্বের শীতলতম স্কুলে ক্লাস হয় মাইনাস ৫১ ডিগ্রি তাপমাত্রায়

Paris
Update : সোমবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০২০

এফএনএস : বিশ্বের অন্যতম শীতল স্থান হচ্ছে সাইবেরিয়া। আর এখানেই রয়েছে বিশ্বের শীতলতম স্কুল। এখানে তাপমাত্রা প্রায়ই থাকে মাইনাস ৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে। কিন্তু আশ্চর্যজনক ব্যাপার হলো এই শীতেও ছোট শিশুরা স্কুলে আসছে। তবে যখন তাপমাত্রা মাইনাস ৫২ ডিগ্রি সেলসিয়াসেরও নিচে চলে যায় তখন ১১ বছরের শিক্ষার্থী বা তারও কম বয়সীদের জন্য স্কুল বন্ধ থাকে। এই স্কুলটি ওইমিয়াকন শহরে অবস্থিত। শুধু স্কুল না, পোস্ট অফিস এবং ব্যাংকের মতো কিছু প্রাথমিক সুবিধাও রয়েছে এখানে। জীবনধারণের জন্য এই জায়গা মারাত্মক রকম চ্যালেঞ্জিং।

এমনকি করোনাভাইরাসের ঝুঁকিও রয়েছে। স্কুলে আসা শিক্ষার্থী ও অভিভাবক এবং কর্মীদের নিয়মিত দেহের তাপমাত্রাও পরীক্ষা করা হয়। ১৯৩২ সালে স্তালিনের সময়ে এই স্কুল নির্মাণ করা হয়েছিল। সাম্প্রতিক সময়ে গত ৪ ডিসেম্বর সকাল ৯টার দিকে সেখানকার তাপমাত্রা ছিল মাইনাস ৫১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। স্থানীয় সূত্র জানাচ্ছে, সেখানে গ্লাভস না পড়লে হাত কয়েক মুহূর্তে পুরোপুরি জমে যায়। এ ছাড়া তুষারপাতের সমস্যার জেরে আঙুলের ক্ষতি হতে পারে।

এখানকার আবহাওয়ায় শিশুদের পক্ষে স্কুল করা যে কতটা চ্যালেঞ্জিং তা সহজেই অনুমান করা যায়। উল্লেখ্য, মাইনাস ৫০ ডিগ্রি তাপমাত্রায় হাইপোথার্মিয়া হওয়ার ঝুঁকিও বেড়ে যায়। এমন হলে দেহের তাপমাত্রা দ্রুত নামতে শুরু করে। যার ফলে দ্রুত হার্টবিট, নার্ভাসনেস এবং কিছু ক্ষেত্রে মৃত্যুও হতে পারে।


আরোও অন্যান্য খবর
Paris