এফএনএস : ভারতে বিজেপিশাসিত কর্ণাটকে গোহত্যা বিরোধী বিল পাস করাকে কেন্দ্র করে রাজ্যটিতে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। বুধবার কর্ণাটকের ইয়েদুরাপ্পা সরকার বিধানসভায় গরু জবাই নিষিদ্ধ বিল পাস করে। এ সময় বিধানসভায় ব্যাপক হৈচৈ হয়। বিরোধী কংগ্রেস ও জেডি (এস) বিধায়করা ওয়েলে নেমে বিক্ষোভ প্রদর্শনের পাশাপাশি ওয়াকআউট করেন। বিরোধীরা বলছে, ‘বিজনেস অ্যাডভাইসরি কমিটি’তে আলোচনা ছাড়াই বিধানসভায় ওই বিল পেশ করা হয়।

স্পিকার বিশ্বেশ্বর হেগড়ে খাগেরি অবশ্য বিরোধীদের অভিযোগ খারিজ করে দিয়েছেন। ওই ঘটনার প্রতিবাদে ওয়াকআউট করেন বিরোধী বিধায়করা। কংগ্রেস নেতা সিদ্দারামাইয়া অভিযোগ করে বলেছেন, বিজেপি সরকার সম্পূর্ণ অগণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে বিল পাস করেছে। কংগ্রেসের পক্ষ থেকে অধিবেশন বয়কটের ডাক দেয়া হয়েছে। তবে বিধানসভায় গোহত্যা নিষিদ্ধ বিল পাসের বিরোধিতা করে কংগ্রেস তোষণের রাজনীতি করছে বলে অভিযোগ করেছেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি ও সাংসদ নলীন কুমার কাটিল।

কর্ণাটকের প্রচলিত আইন অনুসারে, গবাদি পশুর বয়স ১২ বছরের বেশি হলে সেটিকে জবাইয়ের অনুমতি ছিল। প্রজননে অক্ষম এবং দুধ দিতে পারে না, এমন গরু ও মোষ জবাই করা যেত। কিন্তু বুধবার বিধানসভায় পাস হওয়া বিলটি আইনে পরিণত হলে সেসব এবার বেআইনি হয়ে যাবে।