মঙ্গলবার

২৫শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

১১ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কলেজে ভর্তি অনলাইনে আবেদন শুরু ২৬ মে, ফাঁকা থাকবে ৮ লাখের বেশি আসন

Paris
Update : মঙ্গলবার, ১৪ মে, ২০২৪

গত কয়েক বছরের ধারাবাহিকতায় এবারো এসএসসিতে প্রাপ্ত জিপিএ’র ভিত্তিতেই কলেজে ভর্তির সুযোগ পাবে শিক্ষার্থীরা। আর ভর্তির জন্য কলেজ বাছাইয়ে অনলাইনে আবেদন শুরু হবে আগামী ২৬ মে। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিয়ে শিগগিরই বিজ্ঞপ্তি জারি করবে সংশ্লিষ্ট শিক্ষা বোর্ড। এ দিকে গত রোববার এসএসসি ও সমমানের ফলাফল প্রকাশের এর শিক্ষার্থীদের এখন একটাই লক্ষ্য ভালো ও পছন্দের কলেজে ভর্তি। সংশ্লিষ্টরা জানান, চলতি বছরের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় পাসের পর এবার একাদশে ভর্তির অপেক্ষায় শিক্ষার্থীরা। দু’এক দিনের মধ্যেই এ বিষয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করবে শিক্ষাবোর্ডগুলো। ঢাকা বোর্ডের সূত্রে জানা যায়, একাদশ শ্রেণীতে ভর্তির আবেদন শুরু হবে ২৬ মে। তিন ধাপে আবেদন নেয়া হবে। এবারো অনলাইনে আবেদন করতে হবে শিক্ষার্থীদের। এ বছর কলেজে ভর্তির জন্য নির্ধারণ করা হয়েছে কলেজ ভেদে ভর্তি ফি। যদিও প্রতি বছরের মতো এবারো খ্র্ষ্টিান মিশনারি কলেজগুলোতে ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমেই একাদশ শ্রেণীতে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। এর মধ্যে নটরডেম ও হলিক্রস কলেজে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। শিক্ষা বোর্ড সূত্র জানিয়েছে, আগামী ২৬ মে থেকে অনলাইনে আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হতে পারে। এ প্রক্রিয়া চলতে পারে ১১ জুন পর্যন্ত। তবে এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে শিক্ষা বোর্ড ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়। দু-এক দিনের মধ্যে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত আসতে পারে। অন্য দিকে ঢাকা বোর্ড সূত্রে জানা যায়, রাজধানীর কলেজগুলোতে এ বছর ভর্তি ফি সর্বোচ্চ ৭৫০০ টাকা আর ইংরেজি মাধ্যমে ৮৫০০ টাকা। ঢাকা বাদে অন্য মেট্রোপলিটন এরিয়াতে ৫ হাজার, জেলা শহরে ৩ হাজার এবং উপজেলায় আড়াই হাজার টাকা। এটা সর্বোচ্চ ভর্তি ফি। গত সোমবার ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক তপন কুমার সরকার বলেন, এবার সব কলেজ মিলে ২৫ লাখ আসন থাকলেও পাস করেছে ১৬ লাখ ৭২ হাজার। সে হিসাবে ৮ লাখের বেশি আসন খালি থাকবে। তবে ভালো কলেজগুলোয় ভর্তির প্রতিযোগিতা হবে। ভর্তির বিষয়ে দু-এক দিনের মধ্যে সিদ্ধান্ত বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানিয়ে দেয়া হবে। উল্লেখ্য চলতি বছর এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছিল ২০ লাখ ২৪ হাজার ১৯২ জন পরীক্ষার্থী। এর মধ্যে পাস করেছে ১৬ লাখ ৭২ হাজার ১৫৩ জন। এক লাখ ৮২ হাজার ১৩২ শিক্ষার্থী জিপিএ ৫ পেয়েছে। ৯টি সাধারণ, মাদ্রাসা ও কারিগরি বোর্ডে গড় পাসের হার ৮৩.০৪ শতাংশ। পাস করা এসব শিক্ষার্থীর ভর্তির জন্য দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোয় একাদশ শ্রেণীতে আসন রয়েছে প্রায় ২৫ লাখ। সংশ্লিষ্টদের তথ্য বলছে, এসএসসিতে পাস করা সবাই একাদশ শ্রেণীতে ভর্তি হলেও আট লাখ ২৭ হাজারের বেশি আসন ফাঁকা থাকবে। তবে এসব শিক্ষার্থীর বিশেষ করে জিপিএ ৫ পেয়ে পাস করা শিক্ষার্থীদের ভালো কলেজগুলোয় ভর্তির প্রতিযোগিতা হবে। ফলে ভর্তির ক্ষেত্রে মূল প্রতিযোগিতা থাকবে এসব প্রতিষ্ঠানগুলোকে কেন্দ্র করে। অবশ্য এর আগে প্রকাশিত বাংলাদেশ শিক্ষা তথ্য ও পরিসংখ্যান ব্যুরোর (ব্যানবেইস) তথ্যও বলছে, সারা দেশে একাদশ শ্রেণীতে আসন রয়েছে ২৫ লাখ। এর মধ্যে রাজধানীতেই রয়েছে ৫ লাখের বেশি আসন। এবার মাধ্যমিকে ১১টি বোর্ড মিলে পাস করেছে ১৬ লাখ ৭২ হাজার ১৫৩ জন। সে হিসাবেও অন্তত আট লাখের বেশি আসন খালি থেকে যাবে। সূত্র জানায় খ্রিষ্টান মিশনারি পরিচালিত কলেজগুলো বিশেষ সুবিধা পাওয়ায় তারা লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমে একাদশ শ্রেণীতে শিক্ষার্থী ভর্তি করবে।
একাদশে গ্রুপ নির্বাচন : বিজ্ঞান গ্রুপ থেকে এসএসসি উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা উচ্চমাধ্যমিকে বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা গ্রুপের যেকোনো একটি নির্বাচন করতে পারবেন। মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা গ্রুপ থেকে উত্তীর্ণরা এ দুই গ্রুপের যেকোনো একটি নির্বাচন করতে পারবেন। দাখিল উত্তীর্ণ বিজ্ঞান গ্রুপের শিক্ষার্থীরা বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা গ্রুপের যেকোনো একটি ও সাধারণ গ্রুপ থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা গ্রুপের যেকোনো একটি নির্বাচন করতে পারবেন। ভর্তির জন্য কোনো পরীক্ষা হবে না, শিক্ষার্থীদের এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে ভর্তি করা হবে।-এফএনএস


আরোও অন্যান্য খবর
Paris