বৃহস্পতিবার

১৮ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

৫ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সর্বশেষ সংবাদ

রাজশাহী নগরীর আলোচিত সেই লিজা কারাগারে

Paris
Update : বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহী নগরীর একসময়ের আলোচিত-সমালোচিত লিজা এখন কারাগারে। বিভিন্ন সময় একাধিক বিষয় নিয়ে তিনি আলোচনায় উঠে আসে। বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) বোয়ালিয়া থানার একটি চাঁদাবাজি মামলায় আয়েশা আক্তার লিজা রাজশাহীর বিজ্ঞ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ফয়সাল তারেকের আদালতে হাজির হয়ে জামিনের প্রার্থনা করলে বিজ্ঞ আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন এবং মামলার পরবর্তী দিন ধার্য করেন ২৪ এপ্রিল। লিজা রাজপাড়া থানার তেরখাদিয়া এলাকার মৃত চান মিয়ার মেয়ে। গত ১৮ ফেব্রুয়ারি আয়েশা আক্তার লিজার বিরুদ্ধে নগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানায় প্রতারণা ও চাঁদাবাজির মামলা করেন এটিএন বাংলার সহযোগী ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এটিএন ‘ই-মার্টের’ রাজশাহী বিভাগীয় ডিলার প্রভাষ চন্দ্র সরকার (৫৩)।
মামলায় তিনি উল্লেখ করেন, ব্যবসায়িকভাবে চরম আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার কারণে গত ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ লিজার কাছ থেকে এক লাখ টাকা ধার করেন। বিনিময়ে তাকে ৩০০ টাকার স্ট্যাম্প এবং একটি ফাঁকা চেক প্রদান করেন প্রভাষ চন্দ্র সরকার। পরবর্তীতে গত ৭ জানুয়ারি ২০২৪ ইং তারিখে উক্ত টাকা সুদে আসলে পরিশোধ করেন। এসময় এটিএন বাংলার সাংবাদিক সুজাউদ্দিন ছোটনসহ অন্যান্য স্বাক্ষীরা উপস্থিত ছিলেন। টাকা পরিশোধের সময় প্রভাষ চন্দ্র সরকার লিজার নিকট ফাঁকা চেক ও স্ট্যাম্প ফেরত চাইলে সেগুলো পরবর্তীতে দিবে বলে আশ^স্ত করেন। এরপর গত ১৭ ফেব্রুয়ারি সকালে বোয়ালিয়া মডেল থানাধীন শিরোইল কাঁচাবাজারস্থ পূবালী মার্কেটের নিচ তলায় ভুক্তভোগী প্রভাষ চন্দ্র তাকে দেখতে পেয়ে তার ফাঁকা চেক ও স্ট্যাম্প ফেরত চান। সেগুলো ফেরত না দিয়ে উপরন্তু প্রভাষের কাছে লিজা আরও এক লাখ টাকা দাবী করে এবং না দিলে তার বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করবে বলেও হুমকি দেন লিজা। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার বিজ্ঞ আদালতে জামিন আবেদন করেন আয়েশা আক্তার লিজা। আদালত তার জামিন নামঞ্জুর না করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।


আরোও অন্যান্য খবর
Paris