রবিবার

৩রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

১৯শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

রাজশাহীতে ভারতের হাসপাতালের জাল এপয়েন্টমেন্ট তৈরি চক্রর ২ সদস্য আটক

Paris
Update : বুধবার, ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩

স্টাফ রিপোর্টার
ভারতের বিভিন্ন হাসপাতালে জাল এপয়েন্টমেন্ট লেটার তৈরি করা প্রতারক চক্রের দুই সদস্যকে আটক করেছে রাজশাহী মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। এসময় তাদের কাছ থেকে জাল এপয়েন্টমেন্ট লেটার তৈরির কাজে ব্যবহৃত একটি কম্পিউটার, কালার প্রিন্টার ও স্ক্যানার উদ্ধার করা হয়েছে। আটককৃতরা দীর্ঘদিন থেকে এভাবে জাল এপয়েন্টমেন্ট তৈরি করে লোকজনের সাথে প্রতারণা করে আসছিল। আটককৃতরা হলো, শেখ এনামুল হাসান তাসিন (২০) ও রায়হান কবির (২১)। এনামুল রাজশাহী নগরীর বোয়ালিয়া থানার শিরোইল মাস্টারপাড়ার শেখ আবু সাঈদের ছেলে ও রায়হান কর্ণহার থানার শিশাপাড়ার ইসরাইলের ছেলে।
নগর পুলিশ জানায়, নওগাঁ জেলার আত্রাই থানার মোহনঘোষ এলাকার হেলাল আলী নামে এক ব্যক্তি ভারতে যাওয়া জন্য গত ৫ ফেব্রুয়ারি সকাল সাড়ে ১০টায় নগরীর বর্ণালী মোড় ইন্ডিয়ান ভিসা অফিসে ভিসা প্রসেসিংয়ের জন্য যান। অফিসের সামনে অজ্ঞাতনামা একজনকে ভিসা প্রসেসিংয়ের বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলে তিনি রহমান লাইফ সুল্যুশন নামে একটি দোকান দেখিয়ে দেন। তিনি সেখানে গেলে আটককৃতরা তাকে বলে, ভিসা করতে হলে ভারতের হাসপাতালের এপয়েন্টমেন্ট লেটারসহ বিভিন্ন কাগজপত্র লাগবে। তখন হেলাল আলী উক্ত কাগজপত্র কোথায় পাবো বললে তারা জানায় ৩ হাজার ৫শ’ টাকা দিলে তারা সমস্ত কাগজপত্র তৈরি করে দিবে এবং তাদের দেয়া কাগজপত্র ভারতের হাইকমিশনারের অফিসে জমা দিলেই ভিসা পাবেন।
উক্ত কথার পরিপ্রেক্ষিতে হেলাল আলী তাদের ৩ হাজার ৪শ’ টাকা প্রদান করেন। কিছুক্ষন পর তারা ভিসা পাওয়ার আবেদন ও ভারতীয় ডাক্তারের এপয়েন্টমেন্ট লেটারসহ অন্যান্য কাগজপত্র তৈরি করে ভিসা অফিসে জমা দিতে বললে হেলাল আলী উক্ত কাগজপত্র ভিসা অফিসে জমা দেন। পরের দিন বেলা ১১টায় হেলাল আলী খোঁজ খবর নিয়ে তিনি জানতে পারেন, প্রতারকদের দেয়া ভারতীয় ডাক্তারের এপয়েন্টমেন্ট লেটার জাল হওয়ায় তার ভিসা পাওয়ার কোন সম্ভবনা নাই। তখন তিনি আটককৃতদের কাছে গিয়ে টাকা ফেরত চাইলে তারা বিভিন্ন তালবাহানা করে। পরে হেলাল আলী গত সোমবার দুপুরে রাজশাহী মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনারকে বিষয়টি মৌখিকভাবে জানান।
হেলালের অভিযোগ পাওয়ার পর রাজশাহী মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার মো: আল মামুনের সার্বিক তত্ত্বাবধানে অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিবি) মো: আব্দুল্লাহ আল মাসুদের নেতৃত্বে পুলিশ পরিদর্শক আরিফুল ইসলাম, এসআই রবিউল ইসলামের একটি দল সোমবার দুপুর সোয়া ২ টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বর্ণালী মোড় ইন্ডিয়ান অফিস সংলগ্ন রহমান লাইফ সোল্যুশন নামের ওই দোকানে অভিযান পরিচালনা করে। এসময় আটক করা হয় এনামুল হাসান তাসিন ও রায়হান কবিরকে। তাদের দোকানে তল্লাশী চালিয়ে জাল এপয়েন্টমেন্ট লেটার তৈরির কাজে ব্যাবহৃত একটি কম্পিউটার, একটি কালার প্রিন্টার ও একটি স্ক্যানার উদ্ধার হয়।
পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃতরা জানায় তারা ৪ থেকে ৫ জনের সহায়তায় ভারতীয় ডাক্তারের জাল এপয়েন্টমেন্ট লেটার তৈরি করে প্রতারণার মাধ্যমে টাকা হাতিয়ে নিতো। আটককৃতদের বিরুদ্ধে নগরীর মডেল থানায় একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়েছে।


আরোও অন্যান্য খবর
Paris