বৃহস্পতিবার

১৮ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

৫ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুন্ডুমালার মেয়র সাইদুরের বিরুদ্ধে এবার জমি দখলের অভিযোগ

Paris
Update : শনিবার, ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩

তানোর প্রতিনিধি
রাজশাহীর তানোরের মুন্ডুমালা পৌরসভার আলোচিত মেয়র সাইদুর রহমানের বিরুদ্ধে প্রতিবন্ধী নির্যাতনের পর এবার অসহায় মানুষের জমি জবরদখলের অভিযোগ উঠেছে। পৌরসভার সাদিপুর মাথুলিয়া পাড়া মহল্লায় এই জবরদখলের ঘটনাটি ঘটেছে। এঘটনায় ১০ ফেব্রুয়ারী শুক্রবার মশিউর রহমান বাদি হয়ে মেয়র সাইদুর রহমানসহ ৩ জনকে অভিযুক্ত করে স্থানীয় সাংসদ, রাজশাহী জেলা প্রশাসক ও তানোর থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে পৌরবাসীর মধ্যে চাপা ক্ষোভ ও অসন্তোসের সৃষ্টি হয়েছে।
জানা গেছে, মুন্ডুমালা পৌরসভার সাদিপুর মৌজায়, জেল নম্বর ৬৮, ভিপি কেস নম্বর ২৭৩/৯-১/১৩-১৪, দাগ নম্বর ১১০, শ্রেণী ভিটা ও পরিমান ১০ শতক। উক্ত সম্পত্তি ক্রয় সুত্রে দীর্ঘদিন ধরে শান্তিপুর্নভাবে ভোগদখল করে আসছেন তৌহিদুল ইসলামের পরিবার। বিগত ১৯৯৮ সালে মুন্ডুমালা কামিল মাদরাসার কাছে থেকে রেজিষ্ট্রি দলিলের মাধ্যমে ক্রয় করেন তৌহিদুল ইসলাম। এসব জমির পিছনে জমি আছে নাজির ও সানাউল্লাহ’র। গত ৭ ফেব্রুয়ারী মঙ্গলবার তৌহিদুল ইসলামের পুত্র মশিউর রহমান তার জমি বেড়া দিয়ে ঘিরে দিয়েছেন।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ১০ ফেব্রুয়ারী শুক্রবার সকালে মেয়র সাইদুর রহমান লোকজন দলবল নিয়ে ফিল্মি স্টাইলে প্রকাশ্যে দিবালোকে ওই জমির বেড়া-টাটি ভেঙ্গে তছনছ করেন। এসময় মশিউর রহমান বাধা দিতে গেলে মেয়র সাইদুর রহমান তাকে প্রাণনাশের হুমকিসহ বাড়ি থেকে উচ্ছেদের হুমকি দেন। পরে বাধ্য হয়ে মশিউর রহমান তানোর থানায় মেয়রের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেছেন। মেয়র সাইদুর রহমান জানান, যে জায়গা ঘিরেছিল সেটা দিয়ে ১০/১২ পরিবার চলাচল করেন। চলাচলের রাস্তা বন্ধ করার কারো এখতিয়ার নেই। ভুক্তভোগীদের দাবির প্রেক্ষিতে রাস্তা চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়েছে। একাজের জন্য যদি অভিযোগ হয় জবাব দেওয়া হবে। প্রয়োজনে সরেজমিনে দেখার আহবানও জানান তিনি। এ বিষয়ে তানোর থানার ওসি কামরুজ্জামান মিয়া বলেন, অভিযোগ পাওয়া গেছে, তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এ বিষয়ে মশিউর রহমান বলেন থানায় অভিযোগ করার পর থেকে মেয়রের লোকজন তাকে প্রাণনাশসহ বাড়ি থেকে উচ্ছেদের হুমকি দিচ্ছেন। এতে করে মশিউর রহমানের পরিবার চরম নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছেন।


আরোও অন্যান্য খবর
Paris