বগুড়া-৪ ও বগুড়া-৬ আসনের উপনির্বাচনে প্রার্থিতা বাতিলের বিরুদ্ধে আপিল করেছেন আশরাফুল হোসেন আলম (হিরো আলম)। বিএনপির এমপিদের পদত্যাগ করার ফলে শূন্য হওয়া ওই দুই আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু রিটার্নিং কর্মকর্তার যাচাইবাছাইয়ে মনোনয়নপত্র বাতিল হয়। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে আগারগাঁও নির্বাচন ভবনে ইসি কমিশন সচিবালয়ে আপিল আবেদন করেন হিরো আলম।-এফএনএস
জানা যায়, জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ১ শতাংশ ভোটার/সমর্থক থাকা বাধ্যতামূলক। কিন্তু হিরো আলম ১ শতাংশ ভোটার সমর্থক দেখাতে না পারায় এবং যতটুকু দেখিয়েছেন ভোটারের সঙ্গে মিল না থাকায় রিটার্নিং কর্মকর্তা গত ৮ জানুয়ারি বাছাইয়ে তার মনোনয়নপত্র বাতিল করেন। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে হিরো আলম বলেন, বগুড়া-৪ ও বগুড়া-৬ দুইটা আসনেই ১ শতাংশ ভোটারের স্বাক্ষরের কারণে আমার মনোনয়নপত্র বাতিল করেছে। তার জন্যই আমি নির্বাচন কমিশনের কাছে আপিল করলাম। আমার সব কাগজপত্র ঠিক আছে। ওঁরা যে ভুলগুলো ধরেছে তার প্রমাণসহ জমা দিয়েছি। ওঁরা যে ভুলটা ধরেছে একজন ভোটারের নাকি নম্বর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। পরে দেখি ওই নম্বরটি আমি জমাই দেই নাই। তিনি বলেন, ২০১৮ সালে একই ভুলের কারণে আমার মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছিল। পরে হাইকোর্টে রিট করে মনোনয়নপত্র ফিরে পাই। আগামী ১ ফেব্রুয়ারি আসন দুটিতে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।