চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি
গ্রামের সহজ সরল সাধারণ মানুষের টাকা হাতিয়ে নিতে দেশ বন্ধু ও যমুনা নামে দুইটি ভূয়া এনজিও প্রতিষ্ঠা করেছিলেন তারা। বিভিন্ন গ্রাহককে অধিক মুনাফার প্রলোভন দেখিয়ে ও টাকা ঋণ দেওয়ার উস্কানি দিয়ে অসহায় দুঃস্থদের জমাকৃত কোটি টাকা হাতিয়েও নিয়েছেন। এমন প্রতারক চক্রের ৫ জন সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৫ সিপিসি-১ চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্প।

বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ১২ টার দিকে শিবগঞ্জ উপজেলার বিশ্বনাথপুর আব্বাস বাজারে দেশবন্ধু পল্লী উন্নয়ন সমিতির অফিসের সামনে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুর দেড়টার দিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ র‌্যাব ক্যাম্প থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, শিবগঞ্জ উপজেলার কানসাট ইউনিয়নের বহলাবাড়ী এলাকার নজরুল ইসলামের ছেলে নাইমুল ইসলাম (২৯), একই এলাকার নজরুল ইসলামের ছেলে সেলিম রেজা (৩১), পার্বতীপুর গ্রামের মতিউর রহমানের ছেলে আসমাউল হক (২৫), কনসাট শিকারপুর গ্রামের সুলতান আলীর ছেলে মোঃ সোহেল রানা (২৫) ও শিবনগর গ্রামের আব্দুল কাশেমের ছেলে কাইউম রেজা (২২)।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব জানায়, এই চক্রটি সংঘবদ্ধভাবে গ্রামের সহজ সরল সাধারণ মানুষের টাকা হাতিয়ে নেওয়ার জন্য “দেশ বন্ধু” ও “যমুনা” নামে দুইটি ভূয়া এনজিও প্রতিষ্ঠা করে। এই এনজিওতে বিভিন্ন গ্রাহককে অধিক মুনাফার প্রলোভন দেখিয়ে গরীব অসহায় লোকদের বিনিয়োগ করতে এবং টাকা ঋণ নেয়ার জন্য উস্কানি দেয়। পরে গ্রাহকের জমাকৃত কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়।

র‌্যাব আরও জানায়, অসংখ্য ভূক্তভোগীর অভিযোগের ভিত্তিতে চাঁপাইনবাগঞ্জের র‌্যাবের চৌকষ গোয়েন্দা দল দীর্ঘদিন ধরে এ বিষয়ে ছায়া তদন্ত শুরু করে। সম্প্রতি গনমাধ্যমে এনওজিও-র বিষয়ে ব্যাপক লেখালেখি হলে র‌্যাব তা আমলে নিয়ে এই অভিযান করতে উদ্বুদ্ধ হয়। এতে দেশ বন্ধু ও যমুনা এনজিওর প্রতিষ্ঠাতাসহ প্রতারক চক্রের ০৫ জন সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃদের বিরুদ্ধে শিবগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানায়, র‌্যাব-৫ সিপিসি-১ চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্প। এছাড়াও র‌্যাব নিয়মিত জঙ্গী, সন্ত্রাসী, সংঘবদ্ধ অপরাধী, অস্ত্রধারী অপরাধী, মাদক, ভেজাল পণ্য, ছিনতাইকারীসহ হেরোইনের বিরুদ্ধে অভিযান জোরদার করেছে বলে প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।