ছাদখোলা বাসে বিমানবন্দর থেকে বাফুফে ভবনের পথে রওনা দিয়ে বিপত্তিতে পড়তে হলো সাফ জয়ী বাংলাদেশ দলকে। বাস চলা শুরুর পর থেকে খেলোয়াড়রা প্রায় প্রত্যেকে ভিডিও বা লাইভ করছিলেন। ঋতুপর্ণা চাকমার হাতেও ছিল মোবাইল। চারপাশ দেখে মুগ্ধতা ছড়িয়ে পড়ছিল চোখেমুখে। ঠিক তখনই হঠাৎ কপালে আঘাত পান এই ফুটবলার। কী হলো বোঝার আগেই গাড়ি থামিয়ে তাকে অ্যাম্বুলেন্স উঠিয়ে সোজা সিএমএইচে নেওয়া হয়। লেগেছে তিনটি সেলাই; তবে স্বস্তির খবর হলো তিনি সুস্থ আছেন।

কীভাবে হলো, এমন ঘটনা জানতে চাইলে বাফুফের এক্সিকিউটিভ ও কোচিং এডুকেটর সাঈদ হাসানবলেছে, ‘খোলা ছাদের ওপরে অন্যান্যের সঙ্গে দাঁড়িয়েছিল ঋতুপর্ণা। তখন ফ্লাইওভারে ব্যানারের কাঠের কোনা বা ধাতব কিছু একটা ঋতুর কপালে লাগে। এতে আঘাতপ্রাপ্ত হয়। তাৎক্ষণিকভাবে তাকে সিএমএইচে নেওয়া হলে কপালে তিনটি সেলাই পড়ে। সে ভালো আছে।’ খোলা ছাদের বাসে আছেন বাফুফের অন্যতম সদস্য সত্যজিত দাশ রুপুও।

এই প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, ‘ঋতুপর্ণা মাথায় আঘাত পেয়েছে। হাসপাতাল থেকে এখন বাফুফের ভবনের দিকে আসছে। তার আঘাত তেমন গুরুতর নয়।’ গতকাল বুধবার দুপুর ১টা ৪০ মিনিটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছায় সাবিনা খাতুনদের বহনকারী বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইট। এরপরই ছাদখোলা বাসে উৎসব করতে করতে মতিঝিলে বাফুফে পথে রওনা দেওয়ার পর ঘটে এই দুর্ঘটনা।এফএনএস