এফএনএস : সময় টিভির সহযোগী বিশেষ প্রতিনিধি আফজাল হোসেনের বিরুদ্ধে দায়ের করা মানহানি মামলা ছয় মাসের জন্য স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে সাংবাদিক আফজালের বিরুদ্ধে দায়ের করা মানহানির মামলা কেন বাতিল করা হবে না, সেটা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন আদালত। গতকাল রোববার মামলা বাতিল চেয়ে করা আবেদনের শুনানি শেষে বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহ ও বিচারপতি মহি উদ্দিন শামীমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী জেড আই খান পান্না, জাামিউল হক ফয়সাল, সৈয়দা নাসরিন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সারোয়ার হোসেন বাপ্পি। আদেশের পর আইনজীবী জেড আই খান পান্না বলেন, ‘আমরা সাংবাদিক আফজাল হোসেনের বিরুদ্ধে নোয়াখালীতে দায়ের করা ১০ কোটি টাকার মানহানির মামলা বাতিল চেয়ে আবেদন করেছিলাম।

 

আদালতে শুনানি শেষে সাংবাদিক আফজালের বিরুদ্ধে মানহানির মামলার কার্যক্রম ছয় মাসের জন্য স্থগিত করেছেন। একই সঙ্গে ক্ষতিপূরণ চেয়ে করা মানহানির এই মামলা কেন বাতিল করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন।’ দুর্নীতির অভিযোগে ২০১৯ সালের ৫ আগস্ট দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) নোয়াখালীর সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক সুবেল আহমেদ নোয়াখালী জেলা জজ আদালতের নাজির আলমগীর হোসেনসহ চারজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। এ বিষয়ে দুদকের দেওয়া প্রতিবেদন নিয়ে সময় টিভিতে সংবাদ প্রকাশিত হয়। এরই জের ধরে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ও মানহানির অভিযোগে আফজাল হোসেনসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করা হয়। নোয়াখালী আদালতের নাজির আলমগীর হোসেন ২০২১ সালের ৫ মে নোয়াখালীর প্রথম যুগ্ম জেলা জজ আদালতে ১০ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি করে মানহানির মামলাটি করা হয়। এদিকে গত ১১ মে চট্টগ্রাম সাইবার ট্রাইব্যুনালে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে আরেকটি মামলা দায়ের করা হয়।