দায়িত্ববোধের চরম দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন বেঙ্গালুরুর একজন চিকিৎসক। তীব্র যানজটের কারণে গাড়ি থেকে নেমে প্রায় ৪৫ মিনিট দৌড়ে হাসপাতালে গিয়েছেন তিনি। ভারতের বেঙ্গালুরুর মণিপাল হাসপাতালে কর্মরত ওই চিকিৎসকের নাম গোবিন্দ নন্দকুমার। তিনি একজন গ্যাস্ট্রোএন্ট্রালজি সার্জন। খবর এনডিটিভি। সংবাদমাধ্যমের খবরে জানা যায়, গত ৩০ আগস্ট বাড়ি থেকে হাসপাতালের উদ্দেশে রওনা দিয়েছিলেন তিনি। সেদিন প্রবল বৃষ্টির কারণে রাস্তায় পানি জমে চরম যানজটের সৃষ্টি হয়। সরজাপুর-মারাঠাহাল্লি রাস্তায় যানজটে আটকে পড়ে তার গাড়ি। সেদিন হাসপাতালে পৌঁছে রোগীদের গলব্লাডারের অস্ত্রোপচার করার কথা ছিল তার। কিন্তু তীব্র যানজটের কারণে সঠিক সময়ে যেতে পারছিলেন না তিনি।

 

তাই রোগীদের কথা ভেবে গাড়ি থেকে নেমে দৌড়ে হাসপাতালে যান ওই চিকিৎসক। ওই চিকিৎসক বলেছেন, আমাকে মণিপাল হাসপাতালে পৌঁছাতেই হতো। প্রবল বৃষ্টি ও পানি জমে কয়েক কিলোমিটার রাস্তায় যানজট ছিল। আমি তাই সময় নষ্ট করতে চাইনি। অস্ত্রোপচারের জন্য রোগীরা না খেয়ে রয়েছেন। ফলে ওরা অনন্তকাল ধরে অপেক্ষা করুন, তা চাইনি। সে কারণেই দৌড়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিই। উল্লেখ্য, গত ১৮ বছর ধরে একাধিক জটিল অস্ত্রোপচার করেছেন নন্দকুমার। চিকিৎসক হিসেবে তার অনেক সুনাম রয়েছে।

 

রোগীদের কথা ভেবে যে ভাবে দৌড়ে হাসপাতালে গিয়েছেন ওই চিকিৎসক, তাতে সকলেই অবাক। গত কয়েক সপ্তাহের ভারী বৃষ্টির কারণে আইটি শহর খ্যাত ব্যাঙ্গালুরুতে চরম জলাবদ্ধতা ও যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া একাধিক ভিডিওতে দেখা যায়, বেঙ্গালুরু-মাইসুরু হাইওয়েতে জলাবদ্ধতার কারণে যানবাহন আটকা পড়েছে এবং পথচারীদের হাঁটতে সমস্যা হচ্ছে। দুর্গত এলাকার অনেক বাসিন্দাকে এরইমধ্যে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।-এফএনএস