বাংলাদেশ সরকার আর্থিক স্বচ্ছতার ক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক শর্ত পূরণে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি করেছে। তবে এখনো নূন্যতম মানদণ্ডে ঘাটতি রয়েছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের আর্থিক স্বচ্ছতা প্রতিবেদনে এ তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে। গতকাল শনিবার যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর ১৪১টি দেশের আর্থিক স্বচ্ছতা প্রতিবেদন ২০২২ প্রকাশ করেছে।

প্রতিবেদনে বাংলাদেশের বিষয়ে উল্লেখ করা হয়, বাংলাদেশ সরকার একটি যুক্তিসঙ্গত সময়ের মধ্যে বছরের আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি করেছে। প্রস্তাবিত নির্বাহী বাজেটও অনলাইনসহ জনসাধারণের কাছে ব্যাপকভাবে পৌঁছাতে পেরেছে। রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন উদ্যোগে আর্থিক বরাদ্দ এবং আয় সর্বজনীনভাবে বাজেট নথিতে অন্তর্ভুক্তও ছিল। এই প্রতিবেদনে বাংলাদেশের রাজস্ব খাতের স্বচ্ছতায় অগ্রগতি আনতে বেশ কয়েকটি পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

এসব পরামর্শের মধ্যে রয়েছেÑআন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত নীতি অনুযায়ী বাজেট নথি প্রস্তুত করা, সর্বোচ্চ নিরীক্ষা প্রতিষ্ঠানটি স্বাধীনতার আন্তর্জাতিক মান নিশ্চিত করা, যথাসময়ে নিরীক্ষা প্রতিবেদন প্রকাশ করা। রাজস্বখাতে স্বচ্ছতা আনতে, কর ও রাজস্ব কীভাবে ব্যয় করা হয় এবং কার্যকর সরকারি আর্থিক ব্যবস্থাপনার লক্ষ্যে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর ২০০৮ সাল থেকে প্রতি বছর বৈশ্বিক আর্থিক স্বচ্ছতা প্রতিবেদন প্রকাশ করে আসছে।-এফএনএস