রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের মৃত্যুতে যুক্তরাজ্যের নতুন রাজা নির্বাচিত হয়েছেন প্রয়াত রানির বড় ছেলে চার্লস ফিলিপ আর্থার জর্জ। রানির মৃত্যুর কিছুক্ষণের পর উত্তরাধিকারী হিসেবে সাবেক প্রিন্স অব ওয়েলসের কাছে এই দায়িত্ব চলে যায়। তবে বেশ কিছু আনুষ্ঠানিক রীতির মধ্য দিয়ে তাকে রাজমুকুট পরতে হবে।

তৃতীয় চার্লস নামে পরিচিত হবেন ফিলিপ আর্থার জর্জ। এর জন্য কিছু ঐতিহ্যগত আনুষ্ঠানিকতা রয়েছে, যা আগামী শনিবার এক অনুষ্ঠানে রাজা হিসেবে ঘোষণা দেওয়া হবে। নতুন রাজা প্রিন্স চার্লস পার্লামেন্ট এবং চার্চ অব ইংল্যান্ডের কাছে তার আনুগত্য প্রকাশ করবেন।

তিনি হবেন চার্চের নতুন সুপ্রিম গভর্নর। তবে চার্লসকে যে ‘কিং চার্লস’ হতেই হবে বাধ্যবাধকতা নেই। তাই, প্রিন্স চার্লস ফিলিপ আর্থার জর্জ যদি চান, তবে অভিষেকের পর তার নাম হতে পারে ‘কিং ফিলিপ’ অথবা ‘কিং আর্থার’ অথবা ‘কিং জর্জ’। আর তার স্ত্রী ক্যামিলাকে ‘দ্য কুইন কনসোর্ট’ বলা হবে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আজ শনিবার আনুষ্ঠানিকভাবে রাজা হিসেবে ঘোষণা করা হতে পারে তাকে।

লন্ডনের জেমস প্রাসাদে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে। ১৯৯২ সালে সবশেষ অ্যাকসেসন কাউন্সিলে প্রায় ২০০ জন লোক অংশ নিয়েছিলেন। সভায় প্রিভি কাউন্সিলের লর্ড প্রেসিডেন্ট রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের মৃত্যু ঘোষণা করবেন এবং একটি ঘোষণা উচ্চৈঃস্বরে পাঠ করবেন।

ঘোষণার শব্দ পরিবর্তন হতে পারে, তবে ঐতিহ্যগতভাবে পূর্ববর্তী রাজার প্রশংসা করে নতুনের জন্য সমর্থনের প্রতিশ্রুতি প্রদান করা হয়। পরে চার্লসকে নতুন রাজা হিসেবে প্রকাশ্যে ঘোষণা করা হবে। গার্টার কিং অব আর্মস নামে পরিচিত একজন কর্মকর্তা সেন্ট জেমস প্যালেসের ফ্রেরি কোর্টের বারান্দা থেকে ঘোষণা দেবেন। বলা হবে, সৃষ্টিকর্তা রাজাকে রক্ষা করুন। ১৯৫২ সালের পর প্রথমবার মতো গত সেভ দ্য কিং সুরের সঙ্গে বাজানো হবে জাতীয় সঙ্গীত।হাইড পার্ক, দ্য লন্ডন টাওয়ার এবং নৌ জাহাজ থেকে বন্দুকের গুলিতে স্যালুট প্রদর্শন করা হবে।

এ সময় এডিনবার্গ, কার্ডিফ এবং বেলফেস্টে চার্লসকে রাজা উল্লেখ করে ঘোষণাপত্র পাঠ করা হবে। তবে চার্লস সিংহাসনে বসলেও শিগিগিরই মুকুট পড়তে পারবেন কিনা তা নিয়ে কিছুটা ধোঁয়াশা রয়েছে। কারণ ১৯৫২ সালের ফেব্রুয়ারিতে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ সিংহাসনে আসীন হওয়ার পরও ১৯৫৩ সালের জুন পর্যন্ত মুকুট পরা হয়নি। গত ৯০০ বছর ধরে ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবেতে রাজ্যভিষেক অনুষ্ঠান হয়েছে।

উইলিয়াম দ্য কনকারর ছিলেন প্রথম রাজা। চার্লস হতে যাচ্ছেন ৪০তম। এই আয়োজনে সব ধরনের ব্যয় বহন করে থাকে সরকার। অনুষ্ঠানে কেমন আয়োজন থাকবে এবং কারা উপস্থিত থাকবেন তার তালিকা রাষ্ট্রীয়ভাবে করা হয়। কমলা, গোলাপ, দারুচিনি, কস্তুরী এবং অ্যাম্বারগ্রিসের তেল ব্যবহার, জাতীয় সঙ্গীত পাঠে নতুন রাজাকে অভিষেক করার রীতি রয়েছে। তৃতীয় চার্লসের ক্ষেত্রেও একই আচার থাকছে। সারা বিশ্বের মানুষের জন্য সরাসরি এই অনুষ্ঠান সম্প্রচার করা হবে।-এফএনএস