পদ্মা সেতুর রেলিংয়ের নাট খুলে টিকটক ভিডিও করায় গ্রেপ্তার বায়েজিদ তালহার (৩০) জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। গতকাল বুধবার সাতদিনের রিমান্ড শেষে আদালতে জামিন আবেদন করলে শরীয়তপুরের চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সামসুল আলম এ নির্দেশ দেন। আদালত সূত্র জানায়, ২৬ জুন পদ্মা সেতুর জাজিরা প্রান্তের রেলিংয়ের একটি নাট খোলেন বায়েজিদ তালহা। সেটি ভিডিও ধারণ করে টিকটক অ্যাকাউন্টে ছড়িয়ে দেন। ওই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে দেশজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়। ওই দিনই সিআইডি পুলিশ তাকে ঢাকার পল্টন এলাকা থেকে আটক করে। -এফএনএস

 

আটকের পর সিআইডি পুলিশের পরিদর্শক শাহীনুল ইসলাম বাদী হয়ে পদ্মা সেতু দক্ষিণ থানায় ২৬ জুন রাতে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা করেন। নাট খোলার ঘটনায় বায়েজিদকে সহযোগিতা করায় মামলায় আসামি করা হয় কায়সার আহম্মেদ (২৬) নামের এক তরুণকে। ঘটনার পর থেকে কায়সার পলাতক। গ্রেপ্তারের পরদিন বায়েজিদকে আদালতে নিয়ে তদন্তের স্বার্থে রিমান্ডের আবেদন করে সিআইডি। আদালত তার সাতদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। রিমান্ড শেষ হলে গতকাল বুধবার বায়েজিদকে আদালতে হাজির করা হয়। আদালত পুলিশের পরিদর্শক জাহাঙ্গীর আলম বলেন, সেতুর রেলিংয়ের নাট খোলা যুবককে রিমান্ড শেষে আদালতে হাজির করা হয়। আদালত তার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।