এফএনএস : এসএসসি পরীক্ষা ঈদের পর শুরু হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আবু বকর ছিদ্দীক। গতকাল বুধবার নিজ দফতরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা জানান।

সচিব মো. আবু বকর ছিদ্দীক বলেন, সার্বিক বন্যার কারণে ঈদের আগে পরীক্ষা নেওয়া যাবে না।

ঈদের পর পরীক্ষা নিতে হবে। আর এসএসসি পরীক্ষা পিছিয়ে যাওয়ার কারণে এইচএসসি পরীক্ষাও পিছিয়ে যাবে।

এর আগে গত মঙ্গলবার আন্তশিক্ষা বোর্ডের সমন্বয়ক ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক তপন কুমার সরকার জানিয়েছিলেন,

পরীক্ষার নতুন রুটিন প্রকাশ করা নির্ভর করছে দেশের সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির ওপর।

বন্যা পরিস্থিতি বুঝে স্থগিত হওয়া এসএসসি পরীক্ষার নতুন রুটিন প্রকাশ করা হবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হলে আসন্ন ঈদুল আজহার পর নতুন রুটিনে পরীক্ষা শুরু করা হবে।

এদিকে এসএসসি পরীক্ষা পিছিয়ে যাওয়ার কারণে এইচএসসি পরীক্ষাও পিছিয়ে যাবে।

প্রসঙ্গত, ২০২২ সালের এসএসসি ও সমমান পরীক্ষা গত ১৯ জুন শুরু হওয়ার কথা ছিল।

নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী, এসএসসি পরীক্ষা শেষ হতো ৬ জুলাই।

কিন্তু সিলেটসহ সারা দেশে সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় গত ১৭ জুন এই পরীক্ষা স্থগিত ঘোষণা করা হয়।

আন্তশিক্ষা বোর্ডের সমন্বয়ক ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক তপন কুমার সরকার বলেন,

পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে রুটিন প্রকাশ করবো। নতুন রুটিনে পরীক্ষা শুরু করে দেবো।

সিলেট থেকে পানি নামা শুরু করলেও নতুন নতুন জেলা প্লাবিত হচ্ছে। কবে নাগাদ বন্যা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে,

তা বুঝতে পারছি না। পরিস্থিতি বিবেচনা করে রুটিন প্রকাশ করবো।

এইচএসসি পরীক্ষার বিষয়ে অধ্যাপক তপন কুমার সরকার বলেন,

এসএসসি পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া শুরু করতে দুই মাস সময় প্রয়োজন হয়।

সে কারণে এইচএসসি পরীক্ষাও পিছিয়ে যাবে।