এফএনএস : আফগানিস্তানে আঘাত হানা ৬.১ মাত্রার এক ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৯৫০ জনে দাঁড়িয়েছে বলে জানিয়েছেন দেশটির দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা। গতকাল বুধবার ভোরে আঘাত হানা এই ভূমিকম্পে আরও ছয় শতাধিক মানুষ আহত হওয়ার কথা জানা গেছে।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, দুর্গম পার্বত্য গ্রাম থেকে তথ্য পেতে দেরি হচ্ছে। ফলে হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তারা। আফগান সংবাদমাধ্যমে প্রচারিত ছবিতে দেখা যাচ্ছে ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয়েছে বাড়িঘর। কম্বলে মোড়ানো মরদেহের সারি মাটিতে রাখা হয়েছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা সালাউদ্দিন আইয়ুবি জানিয়েছেন, আহতদের উদ্ধারে এবং খাবার ও জরুরি চিকিৎসা পণ্য পরিবহনে হেলিকপ্টার মোতায়েন করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘কিছু গ্রাম পাহাড়ের দুর্গম অঞ্চলে থাকায় মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে এবং বিস্তারিত সংগ্রহ করতে কিছুটা সময় লাগবে’। ২০০২ সালের পর আফগানিস্তানের সবচেয়ে প্রাণঘাতী ভূমিকম্প হয়েছে গতকাল বুধবার ভোরে। মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা (ইউএসজিএস) জানিয়েছে, ভূমিকম্পটির উৎপত্তি হয়েছে পাকিস্তান সীমান্তবর্তী দক্ষিণপূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ খোস্ত থেকে প্রায় ৪৪ কিলোমিটার দূরে। সবচেয়ে বেশি নিহতের ঘটনা নিশ্চিত হওয়া গেছে পাকতিকা প্রদেশে।

সেখানে ২৫৫ জন নিহত এবং আরও দুই শতাধিক মানুষ আহতের বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া গেছে বলে জানান সালাউদ্দিন আইয়ুবি। এ ছাড়া খোস্ত প্রদেশে আরও ২৫ জন নিহত এবং ৯০ জনকে হাসপাতালে নেওয়ার তথ্য জানান তিনি। ক্ষমতাসীন তালেবানের সর্বোচ্চ নেতা হাইবাতুল্লাহ আখুন্দজাদা এক বিবৃতিতে ভূমিকম্পে হতাহতদের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন। সূত্র: রয়টার্স