এফএনএস : বাংলাদেশ রেলওয়ের  অনলাইনে ট্রেনের টিকিট এর মোবাইল অ্যাপ ‘রেল সেবা’ উদ্বোধন করা হয়েছে।

গতকাল বুধবার রেল ভবনে রেলপথ মন্ত্রী মো. নুরুল ইসলাম সুজন অ্যাপটির উদ্বোধন করেন।

এই অ্যাপ তৈরি ও ব্যবস্থাপনার কাজ করেছে বাংলাদেশ রেলওয়ের টিকিটিং পার্টনার সহজ-সিনেসিস-ভিনসেন জেভি।

এখন থেকে রেলের যাত্রীরা বাংলাদেশ রেলওয়ের ই-টিকিট ওয়েবসাইট eticket.railway.gov.bd  এর পাশাপাশি ‘রেল সেবা’ অ্যাপ ব্যবহার করে ট্রেনের টিকিট কাটতে পারবেন।

নতুন ‘রেল সেবা’ অ্যাপটি বর্তমানে গুগল প্লে স্টোরে পাওয়া যাচ্ছে।

টিকিট কাটার জন্য যাত্রীদের অ্যাপটি ডাউনলোড করে নিজের নাম, মোবাইল নম্বর, ই-মেইল অ্যাড্রেস, জাতীয় পরিচয়পত্র/জন্ম নিবন্ধন নম্বর ইত্যাদি তথ্য দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।

তবে কোনো যাত্রী যদি ইতোমধ্যে বাংলাদেশ রেলওয়ের ই-টিকেট ওয়েবসাইটে রেজিস্টার করে থাকেন তাহলে তাকে আর দ্বিতীয়বার রেজিস্ট্রেশন করতে হবে না। শুধু মোবাইল নম্বর ও পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করলেই হবে।

‘রেল সেবা’ অ্যাপ ব্যবহার করে টিকিট কাটার জন্য যাত্রীকে তার পছন্দনুযায়ী যাত্রা শুরুর স্টেশন, গন্তব্য স্টেশন,

পছন্দনুযায়ী ট্রেনের ক্লাস ও যাত্রার তারিখ সিলেক্ট করতে হবে।

একই সাথে ‘ট্রেন ডিটেইলস’ থেকে সহজেই ট্রেনের বিস্তারিত তথ্য দেখতে পারবে।

তারপর এভেইলেবল ট্রেন থেকে পছন্দমতো বগি এবং সিট সিলেক্ট করে অনলাইন পেমেন্টের (ডেবিট/ক্রেডিট কার্ড অথবা এমএফএস) মাধ্যমে টিকিট কেটে ফেলতে পারবেন।

এরই মাধ্যমে ই-টিকিট যাত্রীর রেজিস্টারকৃত ই-মেইলে সেন্ড হয়ে যাবে।

একই সাথে যাত্রী অনলাইনে ট্রেনের টিকিট এর ই-টিকিট অ্যাপ থেকে নিজের সুবিধামতো ডাউনলোড করে নিতে পারবে।

যাত্রীদের সুবিধার কথা চিন্তা করে ‘রেল সেবা’ অ্যাপের নেভিগেশন বারে সংযুক্ত করা হয়েছে নানান ফিচার।

‘ভ্যারিফাই টিকেট’ ট্যাব থেকে সহজেই টিকিট ভ্যারিফাই করার সুবিধা রয়েছে।

এছাড়াও ‘মাই টিকেটস’ এর মাধ্যমে ৭ দিন পর্যন্ত পুরাতন ও আসন্ন ট্রিপ ডিটেইলস দেখা যাবে।

যাত্রীরা প্রয়োজনে ‘মাই অ্যাকাউন্টস’ ট্যাবের মাধ্যমে রেজিস্ট্রেশনের সময় নিজের দেওয়া তথ্য, পাসওয়ার্ড আপডেট করে নিতে পারবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রেলপথ সচিব ড. মো. হুমায়ুন কবীর,

বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালক ধীরেন্দ্র নাথ মজুমদার।