প্রেস বিজ্ঞপ্তি : রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি-এর সভাপতি জনাব মাসুদুর রহমান রিংকু সহ পরিচালনা পর্ষদ প্রস্তাবিত বাজেট ২০২২-২০২৩ এর উপর প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন। সম্মানিত সভাপতি মনে করেন ২০৪১ সালের মধ্যে সমৃদ্ধ দেশ গড়তে ‘কোভিডের অভিঘাত পেরিয়ে উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় প্রত্যাবর্তন’ স্লোগান সম্বলিত ৬ লাখ ৭৮ হাজার ৬৪ কোটি টাকার বাজেট একটি বৃহৎ বাজেট পেশ করেছেন। করোনার এই মহামারির প্রভাব কাটিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর এই দৃঢ় সময়োপযোগী সাহসী পদক্ষেপকে সাধুবাদ জানাই। এটি একটি সুদূর প্রসারী চেতনা সমৃদ্ধ বাজেট।  তিনি বলেন ৭.৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জনের লক্ষকে সামনে রেখে প্রস্তাবিত এবারের বাজেটে রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রির প্রস্তাবিত বিষয়গুলির প্রতিফলন থাকবে বলে আমরা আশাবাদি। এছাড়াও দেশকে উন্নয়নের ধারায় ফিরিয়ে আনার জন্য কৃষি, খাদ্য, নতুন কর্মসংস্থান সৃজন, প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে সামাজিক নিরাপত্তার আওতায় আনা, রাশিয়া ইউক্রেইন যুদ্ধের কারণে সৃষ্ট সংকট মোকাবিলা করে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ এবং ভর্তুকির চাপ সামাল দেওয়াসহ শিক্ষা ও স্বাস্থ্য খাতকে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া সরকারের উন্নয়নের সদিচ্ছার বহিঃপ্রকাশ।

তিনি আরও বলেন, আগামী অর্থবছরে জন্য জিডিপি’র আকার প্রাক্কলন করা হয়েছে ৪৪ লাখ ৪৯ হাজার ৯৫৯ কোটি টাকা। জিডিপি প্রবৃদ্ধি ধরা হয়েছে ৭ দশমিক ৫ শতাংশ। অন্যদিকে, আগামী অর্থবছরের বাজেটে মূল্যস্ফীতি ৫ দশমিক ৬ শতাংশ হবে বলে প্রক্ষেপণ করা হয়েছে। তিনি বলেন আমরা আশাবাদী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তাঁর উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় এ বাজেটের মাধ্যমে রাজশাহীকে সঙ্গে রাখবেন এবং রাজশাহীর উন্নয়ন পরিকল্পনায় অনুন্নত রাজশাহী অঞ্চলের শিল্প বিকাশের মাধ্যমে প্রচুর কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা ছাড়াও কর আরোপের ক্ষেত্রে বিশেষ প্রনোদনা এবং কম ইকুইটিতে ব্যাংক লোন প্রদানের ব্যবস্থা রেখে বাজেট পাশ করবেন। আমরা মনে করি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর যোগ্য নেতৃত্বে আমরা জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে পারবো।