এফএনএস : ক্যান্সারের চিকিৎসায় ইতিহাসে প্রথমবারের মতো অভূতপূর্ব সাফল্য পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা। পরীক্ষামূলক চিকিৎসায় অংশ নেওয়া মলদ্বারের ক্যান্সারে আক্রান্তদের সবাই সুস্থ হয়েছেন বলে দাবি করেছেন বিজ্ঞানীরা। মার্কিন দৈনিক নিউইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা অত্যন্ত ছোট পরিসরে একটি ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল চালিয়েছেন। এতে মলদ্বারের ক্যান্সারে আক্রান্ত ১৮ জন রোগীকে প্রায় ছয় মাস ধরে ডোস্টারলিম্যাব নামের একটি ওষুধ দেওয়া হয়। ট্রায়াল শেষে তাদের কারোরই মলদ্বারে ক্যান্সারের অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি। ডোস্টারলিম্যাবে গবেষণাগারে তৈরি মলিকিউল যুক্ত থাকে, যা মানবদেহে বিকল্প অ্যান্টিবডি হিসাবে কাজ করে। ব্রিটিশ বহুজাতিক ফার্মাসিউটিক্যাল জায়ান্ট গ্ল্যাক্সোস্মিথক্লাইনের তৈরি করা ওষুধটি ট্রায়ালে অংশ নেওয়া সব রোগীকে সমমাত্রায় দেওয়া হয়েছিল। নিউইয়র্কের মেমোরিয়াল স্লোয়ান কেটারিং ক্যান্সার সেন্টারের চিকিৎসক লুইস ডায়াজ জুনিয়র বলেন, ‘ক্যান্সার চিকিৎসার ইতিহাসে এমন ঘটনা প্রথমবারের মতো ঘটেছে।’ নিউইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে অংশ নেওয়ার আগে রোগীরা কেমোথেরাপি, রেডিয়েশন ও অস্ত্রোপচারের মতো চিকিৎসাব্যবস্থার মুখোমুখি হয়েছিলেন। আর এসব চিকিৎসার ফলে ক্যান্সার আক্রান্তদের অন্ত্র ও প্রস্রাবের জটিলতা দেখা দিতে পারে, এমনকি তারা যৌন সক্ষমতাও হারাতে পারেন। ট্রায়ালে অংশ নেওয়া ১৮ জন ধরেই নিয়েছিলেন ট্রায়াল শেষে আবারও তাদের আগের চিকিৎসায় ফিরে যেতে হবে। তবে আশ্চর্যজনকভাবে তারা পুরোপুরি সুস্থ হয়েছেন এবং তাদের আর পুরোনো চিকিৎসায় ফিরে যেতে হয়নি।