এফএনএস : দক্ষিণ আফ্রিকায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে সালা উদ্দিন রায়হান (৩৫) নামের এক বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। তিনি নোয়াখালীর সদর উপজেলার নোয়াখালী ইউনিয়নের মতিপুর গ্রামের মো. সোলায়মানের ছেলে। গতকাল শুক্রবার বিকেলে নিহতের ছোট ভাই মোসলেহ উদ্দিন রোমন বিষয়টি নিশ্চিত করেন। এর আগে স্থানীয় সময় বুধবার দিবাগত রাত ৮টার দিকে জোহানেসবার্গ শহরে এ ঘটনা ঘটে। মোসলেহ উদ্দিন রোমন জানান, শহর থেকে পণ্য কিনে গাড়ি দোকানের সামনে পার্কিং করে নামছিলেন রায়হান। এ সময় আগ থেকে ওত পেতে থাকা একদল সন্ত্রাসী তাকে লক্ষ্য করে ১৫-২০ রাউন্ড গুলি ছোড়ে। মুহূর্তে গুলিবিদ্ধ হয়ে মাটিতে লুটে পড়েন রায়হান।

গুলির শব্দ শুনে দোকান থাকা ছোট ভাই নিজাম উদ্দিন বাবু ও আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে তারা উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। বর্তমানে রায়হানের লাশ আফ্রিকার একটি হিমাগারে রাখা আছে। তার গ্রামের বাড়ি নোয়াখালীর সদর উপজেলায় শোকের মাতম চলছে। আগামী ২-৩ দিনের মধ্যে তার লাশ দেশে আনার চেষ্টা চলছে। মোসলেহ উদ্দিন রোমন জানান, তারা চার ভাই ও এক বোনের মধ্যে দ্বিতীয় ছিলেন রায়হান। জীবিকার সন্ধানে ১৪ বছর আগে তিনি আফ্রিকায় যান।

পরে জোহানেসবার্গের বারাত এলাকায় একটি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান চালু করেন। কয়েক বছর আগে ছোট ভাই নিজাম উদ্দিন বাবুকেও সেখানে নিয়ে যান তিনি। বর্তমানে রায়হানের তত্ত্বাবধানে জোহানেসবার্গে তিনটি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে, যার অংশীদার কয়েকজন। রায়হান ও বাবু মিলে একটি প্রতিষ্ঠান দেখাশোনা করতেন। সর্বশেষ ছুটিতে এসে একমাস আসে দেশ থেকে আফ্রিকায় গিয়েছিলেন রায়হান।