এফএনএস : মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পরিস্থিতিতে সুপ্রিম কোর্টের আপিল ও হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি ও আইনজীবীদের গাউন পরার বাধ্যবাধকতা নেই। পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে বিচারক এবং আইনজীবীরা ক্ষেত্রমতে সাদা শার্ট বা সাদা শাড়ি/সালোয়ার কামিজ ও সাদা নেক ব্যান্ড/কালো টাই পরিধান করবেন। প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর নির্দেশক্রমে গতকাল বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মো. আলী আকবরের সই করা বিজ্ঞপ্তিতে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়। সুপ্রিম কোর্টের মুখপাত্র ও স্পেশাল অফিসার ব্যারিস্টার মোহাম্মদ সাইফুর রহমান সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, উপর্যুক্ত বিষয়ে নির্দেশিত হয়ে জানানো যাচ্ছে যে, বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের উভয় বিভাগের বিচারপতিরা ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে মামলা শুনানির সময় ক্ষেত্রমতে টার্নড আপ সাদা কলার ও সাদা ব্যাচসহ সাদা শার্ট ও প্যান্ট/শাড়ি বা সালোয়ার কামিজ ও জাজেস কোট পরিধান করবেন। উভয়ক্ষেত্রে গাউন পরিধানের বাধ্যবাধকতা নেই। এর আগে করোনা পরিস্থিতিতে ২০২০ সালের জুলাই ও আগস্টে পৃথক বিজ্ঞপ্তিতে কালো কোট/শেরওয়ানি ছাড়া বাকি পোশাক পরিধান করতে বলা হয়েছিল।

তবে নভেম্বরে শীত মৌসুমে সেই সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করা হয়। ২০২১ সালের মার্চে সেটি আবার পরিবর্তন করা হয়। ২০২২ সালের শুরুতে আবার পোশাক নিয়ে নতুন নির্দেশনা দেওয়া হলো। করোনার সংক্রমণ বাড়ায় গত বুধবার থেকে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ ও হাইকোর্ট বিভাগের বিচারকাজ ভার্চুয়ালি পরিচালিত হচ্ছে।