স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহী বাগমারায় একটি মহল ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ উঠেছে। উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ গোলাম সরোয়ার আবুল গত ২ অক্টোবর গোবিন্দপাড়া ইউপি সভা কক্ষে ঘরোয়া পরিবেশে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের একটি সভায় যে বক্তব্য দিয়েছে, সেটা দলের নেতাকর্মীদের উজ্জিবিত করার জন্য বলা হয়েছে। সেই বক্তব্যকে কেন্দ্র করে গোবিন্দপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান উপজেলা কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি বিজন সরকার ব্যক্তিস্বার্থ চরিতার্থ করার নিমিত্তে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিকে ভঙ্গের জন্য এবং আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে প্রভাবিত করার জন্য সে বিভিন্ন প্রকার অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে।

বিষয়টি উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দরা গভীরভাবে পর্যালোচনা করছেন এবং উপজেলা আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে উক্ত ঘটনার তীব্র নিন্দা জানানো হয়েছে। এ ঘটনায় বাগমারায় হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনের সাথে কোন সম্পৃক্ততা নেই। ভোট না দিলে উচিত শিক্ষা দেয়া হবে এধরণের কোন ঘোষণা উক্ত সভায় প্রদান করা হয়নি বলে দাবী করে উপজেলা আওয়ামীলীগ। মিথ্যা তথ্য দিয়ে একটি জাতীয় পত্রিকায় সংবাদটি প্রকাশ করিয়ে নেয়া হয়েছে। বাগমারার সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হকের নেতৃত্বে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির সহাবস্থান এবং শান্তির বাগমারাকে অশান্ত করার জন্য বিজন কুমার সরকার মিথ্যা তথ্য দিয়ে বিভ্রান্তি ছড়িয়ে চলেছে।

এছাড়াও তিনি কমিউনিস্ট পার্টির কয়েকজন নেতাকর্মীদের নিয়ে মানব বন্ধন করে আওয়ামীলীগের বিরুদ্ধে যে বক্তব্য প্রদান করেছে আমারা তার তীব্র নিন্দা প্রতিবাদ ও উক্ত বক্তব্য প্রত্যাহারের জোর দাবী জানাচ্ছি। একজন মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে হেয় প্রতিপন্ন করার অপচেষ্টায় সে লিপ্ত রয়েছে। আমরা তার এহেন হীন মানসিকতার ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে প্রকাশিত সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। এক প্রতিক্রিয়ায় গোয়ালকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ নেতা আলমগীর হোসেন সরকার বলেন, ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের জন্য জনবিচ্ছিন্ন কমিউনিস্ট পার্টির উপজেলা শাখার এক নেতা এসব অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে।