এফএনএস : মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে ২০০৮ সালে আফগানিস্তানে বিপজ্জনক পরিস্থিতি থেকে উদ্ধারে সহায়তাকারী দোভাষী আমান খলিলি দেশ ছেড়েছেন। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে এ খবর জানানো হয়েছে। এক যুগের বেশি সময় আগে আফগানিস্তান সফরকালে তৎকালীন সিনেটর জো বাইডেনসহ কয়েকজন মার্কিন আইনপ্রণেতাকে বহনকারী হেলিকপ্টার বরফ পড়ার কারণে একটি উপত্যকায় অবতরণ করতে বাধ্য হয়েছিল। সেখানে আক্রমণের সমূহ সম্ভাবনা ছিল। ওই পরিস্থিতি থেকে তাঁদের নিরাপদ স্থানে নিয়ে যান আমান খলিলিসহ মার্কিন সরকারের কয়েকজন আফগান কর্মী।

হেলিকপ্টারে তৎকালীন সিনেটর চাক হেগেল ও জন কেরিও ছিলেন। গত সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশে দেশ ছেড়ে সপরিবারে পাকিস্তানে যান আমান খলিলি। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের একজন কর্মকর্তা বিবিসিকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। গত ১৫ আগস্ট কাবুল দখলের মধ্য দিয়ে আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ তালেবানের হাতে যাওয়ার পর থেকে আমান খলিলি দেশত্যাগের জন্য ভিসার আবেদন করেন। যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্ব কাবুল থেকে প্রত্যাহার কার্যক্রম চলাকালে আমান খলিলি প্রেসিডেন্ট বাইডেনের প্রতি আহ্বান জানান, তিনিসহ তাঁর স্ত্রী ও পাঁচ সন্তানকে যেন উদ্ধার করা হয়।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনকে খলিলি বলেন, ‘আমি তাঁকে বিশ্বাস করি। আমার বিশ্বাস, তিনি সবকিছুই করতে পারেন।’ আফগানিস্তান ও ইরাকসহ বিভিন্ন জায়গায় মার্কিন সেনাদের সহযোগী হিসেবে কাজ করা স্থানীয়দের জন্য স্পেশাল ইমিগ্রেশন ভিসা (এসআইভি) ব্যবস্থা চালু করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এর আওতায় ২০০৮ সাল থেকে এ পর্যন্ত ৭০ হাজার আফগান যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ী হয়েছেন।