মচমইল থেকে সংবাদদাতা : রাজশাহী-৪ (বাগমারা) আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক বলেছেন, ধর্ম যার যার উৎসব সবার। উপজেলার প্রতিটি হিন্দু সম্প্রদায়ের ঘরে ঘরে বইছে শারদীয় দূর্গাপূজার আনন্দ। বর্তমান সময়ে প্রতিটি উৎসব সকলের সে যে ধর্মেরই লোক হক না কেন। প্রতিটি উৎসবে সবাই একই আনন্দ উপভোগ করে থাকে। দূর্গোৎসব এখন সার্বজনীন উৎসবে পরিতন হয়েছে। বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে সকল ধর্মের উৎসবে একে অপরের সুখ-দুঃখ ভাগাভাগি করে থাকে। শুক্রবার সকালে সালেহা-ইমারত কোল্ড স্টোরেজে প্রাঙ্গণে হিন্দু সম্প্রদায়ের শারদীয় দূর্গাপূজা উপলক্ষে পূজার উপহার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য প্রদান কালে এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথি আরো বলেন, এই উপহার শুধু উপহারই নয়। এই উপহার হচ্ছে সবার সাথে সুখ-দুঃখ ভাগাভাগি করে নেয়া। গরীব-দুখী যেন দূর্গোৎসবের আনন্দ থেকে বাদ না পড়ে সে জন্য প্রতি পূজোই ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে উপহার দিয়ে থাকি। পরে প্রধান অতিথি উপজেলার হিন্দু সম্প্রদায়ের নারীদের মাঝে পূজার উপহার বিতরণের উদ্বোধন করেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, এনা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তহুরা হক। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি মতিউর রহমান টুকু, আফতাব উদ্দীন আবুল, মরিয়ম বেগম, সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ গোলাম সারওয়ার আবুল, দপ্তর সম্পাদক নুরুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক ফরহাদ হোসেন মজনু,

ভাইস চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ আক্তার বেবী, চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন, আসলাম আলী আসকান, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আল-মামুন, উপজেলা মহিলা আ’লীগের সভাপতি কহিনুর বেগম, সাধারণ সম্পাদক জাহানারা বেগম, যুব মহিলা লীগের সভাপতি প্রভাষক শাহিনুর খাতুন, সাধারণ সম্পাদক পারভীন আক্তার প্রমুখ। শারদীয় দূর্গা পূজা উপলক্ষে উপজেলার প্রায় পাঁচ হাজার হিন্দু সম্প্রদায়ের মাঝে পূজার উপহার হিসেবে একটি করে শাড়ী প্রদান করা হয়েছে।

এদিকে রাজশাহীর বাগমারায় শারদীয়া দূর্গাপূজা সুষ্ঠু ভাবে উদযাপনের লক্ষ্যে ৮৬টি পূজা মন্দিরে আর্থিক অনুদান প্রদান করা হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল শুক্রবার বেলা ১১টায় উপজেলার সালেহা ইমারত কোন্ড স্টোরেজের সভাকক্ষে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে মন্দির কমিটির নেতৃবৃন্দের হাতে নগদ অর্থ প্রদান করেন বাগমারা আসনের সংসদ সদস্য, সড়ক পরিবহণ ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মতিউর রহমান টুকু, সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ গোলাম সারওয়ার আবুল, দপ্তর সম্পাদক নুরুল ইসলাম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ, উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি প্রদীক কুমার সিংহ, সহ-সভাপতি জয়ন্ত কুমার সরকার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বিশ্বনাথ প্রামানিক, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রীষ্টান-ঐক্য পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক হরিশ চন্দ্র, অর্থ সম্পাদক পরিমল কুমার মন্ডল প্রমুখ। প্রতিটি মন্দিরে ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হকের ব্যক্তিগত তহবিল হতে ২ হাজার টাকা করে প্রদান করা হয়েছে।