মচমইল থেকে সংবাদদাতা : রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার ভবানীগঞ্জ পৌরসভায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী হিসেবে চূড়ান্ত ভাবে মনোনীত হলেন আব্দুল মালেক মন্ডল। আব্দুল মালেক মন্ডল ২০১৫ সালে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেয়ে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। আগামী ১৬ জানুয়ারী ভবানীগঞ্জ পৌর নির্বাচনে আবারও দলীয় প্রার্থী হিসেবে মনোনীত হলেন তিনি। আব্দুল মালেক মন্ডল বাগমারা উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও ভবানীগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসিবে দায়িত্ব পালন করছেন।

শুক্রবার বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে একক প্রার্থী হিসেবে মেয়র আব্দুল মালেকের নাম ঘোষণা করা হয়। আসন্ন পৌর নির্বাচন ঘিরে এরই মধ্যে সরগরম হয়ে উঠেছে পৌর এলাকা। ভোটারদের মন জয় করতে বাড়ি বাড়ি যাচ্ছেন তিনি। তাদের সামনে আওয়ামী লীগ সরকারের সময়ে যে সকল উন্নয়ন সংগঠিত হয়েছে তা তুলে ধরছেন।

আব্দুল মালেক মন্ডল মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে পৌর এলাকা জুড়ে। রাস্তা ঘাট, বিদ্যুৎ, শিক্ষা, চিকিৎসা সহ সকল ক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। তার আমলেই তৃতীয় শ্রেণীর পৌরসভা থেকে দ্বিতীয় এবং সর্বশেষ প্রথম শ্রেণীর পৌরসভায় উন্নীত হয়েছে।

ভবানীগঞ্জ পৌর সভায় বিএনপির প্রার্থী থাকলেও জনপ্রিয়তায় এবারও এগিয়ে রয়েছে আব্দুল মালেক মন্ডল। গত নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত সাবেক মেয়র আব্দুর রাজ্জাককে পরাজিত করেন তিনি।
এ ব্যাপারে মেয়র আব্দুল মালেক মন্ডল বলেন, আমি আসন্ন ভবানীগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচনে দলীয় সমর্থন প্রত্যাশী ছিলাম। দল আমাকে মনোনয়ন দিয়েছে।

আমি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসেবে সরকারের সকল উন্নয়ন তুলে ধরে চলেছি। আমি সব সময় জনগণের পাশে আছি। জনগণও আমার পাশে আছে। আ’লীগ সরকারের প্রতিনিধি হিসেবে পৌরসভায় ব্যাপক উন্নয়ন সংগঠিত করেছি। আসন্ন নির্বাচনে বিপুল ভোটে জনগণ আমাকে নির্বাচিত করবে বলে আমি আসা করছি।