মঙ্গলবার

২৫শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

১১ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সুসান রাইসকেও হোয়াইট হাউসে আনছেন বাইডেন

Paris
Update : শনিবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০২০

এফএনএস : বারাক ওবামা আমলের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা সুসান রাইসকে নতুন প্রশাসনে দায়িত্ব দিচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। ৫৬ বছর বয়সী রাইসকে তিনি অভ্যন্তরীণ নীতি বিষয়ক শীর্ষ উপদেষ্টা এবং হোয়াইট হাউসের অভ্যন্তরীণ নীতি বিষয়ক কাউন্সিলের পরিচালক হিসেবে বেছে নিয়েছেন বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। বাইডেন এখন পর্যন্ত তার প্রশাসনের কর্মকর্তা হিসেবে যাদের নিয়েছেন তাদের প্রায় সবারই অভিজ্ঞতার ঝুলি বেশ সমৃদ্ধ। অধিকাংশই বারাক ওবামা প্রশাসনেও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছিলেন। পররাষ্ট্র দপ্তরে দীর্ঘদিন কাজ করার অভিজ্ঞতাসম্পন্ন রাইস জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা হওয়ার আগে ওবামা আমলেই জাতিসংঘে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত ছিলেন। কৃষ্ণাঙ্গ এই নারী বাইডেনের রানিংমেট হওয়ার দৌড়েও ছিলেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বাইডেনের ঘনিষ্ঠ এক কর্মকর্তা জানান, নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট এবার তার প্রশাসনের কর্মকর্তা বাছাইয়ের ক্ষেত্রে পররাষ্ট্র ও অভ্যন্তরীণ নীতিতে দক্ষতাকে আলাদা করে না দেখে অভিজ্ঞতা এবং বিশ্বস্ততাকেই সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন। যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন কেন্দ্রীয় সংস্থা পরিচালনায় অভিজ্ঞ রাইসের মাধ্যমে নিজের নীতি ও পরিকল্পনাগুলো বাস্তবায়িত করা সহজ হবে বলেও বাইডেন মনে করছেন, বলেছেন ওই কর্মকর্তা। রাইসকে বাইডেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবেও বিবেচনা করা হচ্ছিল বলে জানিয়েছে রয়টার্স। কিন্তু ২০১২ সালে লিবিয়ার বেনগাজিতে যুক্তরাষ্ট্র মিশনে প্রাণঘাতী হামলার ঘটনায় ভূমিকার কারণে রাইসকে কংগ্রেসে রিপাবলিকানদের তীব্র বিরোধিতার মুখে পড়তে হবে আশঙ্কায় ডেমোক্র্যাট বাইডেন পরে ওই চিন্তা থেকে সরে আসেন।

নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট পরে ওই পদে অ্যান্টনি ব্লিনকেনকে বেছে নেন। হোয়াইট হাউসের অভ্যন্তরীণ নীতি বিষয়ক পদে আসায় রাইসকে সিনেটের অনুমোদনের অপেক্ষায় থাকতে হবে না। বাইডেন তার প্রশাসনের কৃষিমন্ত্রী হিসেবে আইওয়ার সাবেক গভর্নর টম বিলসেককে নিয়েছেন। ভেটেরান বিষয়ক মন্ত্রী করেছেন ওবামার হোয়াইট হাউস থাকাকালীন উপদেষ্টা ডেনিস ম্যাকডোনাকে। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য প্রতিনিধি হিসেবে চাইনিজ বংশোদ্ভূত ক্যাথরিন তাইকে বেছে নিয়েছেন বলে জানিয়েছে তার ট্রানজিশন টিম।


আরোও অন্যান্য খবর
Paris