শনিবার

২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজশাহী রেল স্টেশনে পুলিশ সদস্যকে মারধর নিরাপত্তা বাহিনীর চার সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা

Paris
Update : শনিবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০২০

স্টাফ রিপার্টার : রাজশাহীতে রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের হাতে মারধরের শিকার হয়েছেন মহানগর পুলিশের ট্রাফিক বিভাগে কর্মরত এক কনস্টেবল। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী পুলিশ সদস্য থানায় মামলা করেছেন। গত বৃহস্পতিবার রাতে রাজশাহী রেলওয়ে থানায় মামলাটি দায়ের করা হয়। মামলায় রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর চারজনসহ অজ্ঞাত আরো একজনকে আসামি করা হয়। পুলিশ আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছে। মারধরের শিকার পুলিশ সদস্যের নাম রিয়াজ হাসান। তিনি রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) ট্রাফিক বিভাগে কর্মরত।

গত বুধবার রাতে রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশনে তিনি মারধরের শিকার হন। এরপর তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেয়েই তিনি থানায় গিয়ে মামলা দায়ের করেন। মামলার এজাহারভুক্ত আসামিরা হলেন, রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর নায়েক কাইয়ুম আলী, সিপাহী শাহিন আলম, মিজানুর রহমান ও বেলাল হোসেন। রাজশাহী রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহ কামাল বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

ঘটনার বিবরণ দিয়ে ওসি জানান, ঐ রাতে কনস্টেবল রিয়াজের পাঁচজন আত্মীয় ট্রেনে রাজশাহী আসেন। কনস্টেবল রিয়াজ ও তার স্ত্রী তাদের স্টেশন থেকে আনতে গিয়েছিলেন। প্ল্যাটফর্ম থেকে ঘুরে আসার পথে আরএনবির সদস্যরা তাদের কাছে টিকিট দেখতে চান। তখন পাঁচ যাত্রীর টিকিট দেখানো হয়। কিন্তু কনস্টেবল ও তার স্ত্রীর টিকিট না থাকার কারণে তাদের ধরে টিকিট কালেক্টরের (টিসি) কাছে নিয়ে যাওয়া হয়। তখন কনস্টেবল নিজের পরিচয় দিয়ে জানান, তিনি এবং তার স্ত্রী ট্রেনের যাত্রী ছিলেন না। তারা স্বজনদের নিতে এসেছিলেন।

এ কথা শোনার পর টিসি তাদের ছেড়ে দেন। কিন্তু টিসির কক্ষ থেকে বের হওয়ার পরই আরএনবির সদস্যরা পুলিশের এই কনস্টেবলকে মারধর শুরু করেন। পরে অন্যান্য যাত্রী এবং পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করেন। এরপর তাকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ওসি জানান, মামলা দায়ের হলেও কোন আসামিকে গ্রেপ্তার করা যায়নি। তাদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।


আরোও অন্যান্য খবর
Paris