রবিবার

৩রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

১৯শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

রাবির সমালোচিত সেই নিয়োগ বাতিলের সিদ্ধান্ত

Paris
Update : শুক্রবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগ্য প্রার্থীদের ভাইভা কার্ড না দেয়া, আবেদনকারী কয়েকজনের যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন থাকাসহ পুরো নিয়োগ প্রক্রিয়ায় ত্রুটি পাওয়া গেছে। এসব কারণে বিশ্ববিদ্যালয়টির ইনস্টিটিউট অব বায়োলজিক্যাল সায়েন্সেস’র (আইবিএসসি) কয়েকটি পদের বিপরীতে নিয়োগ বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইনস্টিটিউটের বোর্ড অব গভরনেন্স। গত ৮ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত নিয়োগ বোর্ড নিয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় ইনস্টিটিউটের বোর্ড অব গভরনেন্সের এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

রাবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. আবদুস সোবহানের সভাপতিত্বে তার বাসভবনে ওই সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ইনস্টিটিউটের বোর্ড অব গভরনেন্সের কয়েকজন সদস্য বিষয়টি নিশ্চিত করেন। সভায় উপস্থিত একজন সদস্য নাম না প্রকাশ করার শর্তে বলেন, আগে থেকেই নিয়োগ প্রক্রিয়া নিয়ে প্রশ্ন ছিল। এছাড়া আবেদনের ক্ষেত্রে অনেক ধরনের অনিয়ম এখানে লক্ষ্য করা গেছে। যাদের যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্নও রয়েছে। যার সহকারী অধ্যাপক পদে আবেদনের যোগ্যতা ছিল না তিনি সহযোগী অধ্যাপক পদে আবেদনের সুযোগ পেয়েছেন।

সব মিলিয়ে প্রক্রিয়াটি ত্রুটিপূর্ণ হওয়ায় এ নিয়োগের বিষয়ে আপত্তি করেন বোর্ড সদস্যরা। এছাড়া বোর্ড সদস্যরা যোগ্য প্রার্থীদের ভাইভা কার্ড না দিয়ে নিয়োগ সম্পন্ন করার বিরোধিতা করেন। একইসঙ্গে উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. এ এফ এম আলী হায়দারকে নিয়োগ বোর্ডের এক্সপার্ট করার বিষয়টি নিয়ে আপত্তি তোলেন।

পরে ইনস্টিউটের অধিকাংশ বোর্ড অব গভরনেন্স সদস্যের আপত্তিতে উপাচার্য বিষয়টিতে সহমত হন এবং সিন্ডিকেটে নিয়োগ বাতিলের সুপারিশ করা হবে এমন সিদ্ধান্তে পৌঁছান সভায় উপস্থিত সদস্যরা। তাছাড়া নতুন বিজ্ঞপ্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এর আগে আবেদনের জন্য সব শর্ত পূরণ করলেও ৫ জনকে ভাইভা কার্ড না দেওয়ার অভিযোগ ওঠে ইনস্টিটিউটের বিরুদ্ধে। এনিয়ে সমালোচনার মুখে পড়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনসহ ইনস্টিটিউটটি।


আরোও অন্যান্য খবর
Paris