বৃহস্পতিবার

১৮ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

৫ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নগরীতে ৭৫ হাজার শিশুকে হাম-রুবেলা টিকা দেয়া হবে

Paris
Update : শুক্রবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০২০

প্রেস বিজ্ঞপ্তি : সারাদেশে আগামীকাল ১২ ডিসেম্বর থেকে ২৪ জানুয়ারী ২০২১ পর্যন্ত হাম রুবেলা টিকাদান ক্যাম্পেইন পালন হবে। রাজশাহী মহানগরীতে জাতীয় হাম-রুবেলা ক্যাম্পেইন পালন উপলক্ষ্যে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে নগরভবনের সিটি হল সভাকক্ষে এ উপলক্ষ্যে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলন প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।

সংবাদ সম্মেলনে মেয়র বলেন, আজকের শিশুরা আগামী দিনের ভবিষ্যত। হাম এবং রুবেলা ভাইরাসজনিত দুটি মারাত্নক সংক্রামক রোগ। এই দুটি রোগ সাধারণত একজন আক্রান্ত রোগীর হাঁচি-কাশির মাধ্যমে তার সংস্পর্শে আসার অন্যদের মধ্যে অতি দ্রুত ছড়ায়। আগামী প্রজন্মকে সুস্থ ও সবলভাবে বড় হতে তাঁদের সকল হাম রুবেলা টিকা প্রদান করতে হবে। তাঁদের সুরক্ষার দায়িত্ব আমাদের আপনাদের সকলের। রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন মা ও শিশু স্বাস্থ্য সেবায় দেশের মধ্যে অনন্য প্রতিষ্ঠান।

ইপিআই টিকাদান কর্মসূচিতে পরপর ৯বার দেশের মধ্যে প্রথম স্থান অর্জন করেছে। রাসিকের স্বাস্থ্যবিভাগসহ সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা এ অর্জন সম্ভব হয়েছে। পরে একইস্থানে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কয়েকটি শিশুকে টিকা প্রদানের পরে মাননীয় মেয়র মহোদয় টিকা প্রদান কার্ড বিতরণ করে এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।

রাসিকের শিক্ষা, স্বাস্থ্য, পরিবার পরিকল্পনা এবং স্বাস্থ্যরক্ষা ব্যবস্থা স্থায়ী কমিটির সভাপতি ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নুরুজ্জামান টুকুর সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সিভিল সার্জন ডাঃ এনামুল হক, সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক হাসিনা মমতাজ। আরও উপস্থিত ছিলেন রাসিকের কাউন্সিলরবৃন্দ, বিশ^ স্বাস্থ্য সংস্থার সার্ভিলেন্স ইমুনাইজেশন মেডিক্যাল অফিসার ডাঃ মোঃ নুরুল ইসলাম, পরিচালক স্বাস্থ্য’র সহকারী পরিচালক ডাঃ আনোয়ারুল কবীর।

জাতীয় হাম রুবেলা ক্যাম্পেইনের সার্বিক কার্যক্রমের ভিডিও চিত্র উপস্থাপন করেন রাসিকের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ এফএএম আঞ্জুমান আরা বেগম। উল্লেখ্য, রাজশাহী মহানগরীর প্রতিটি ওয়ার্ডে ২টি কেন্দ্র প্রতি কার্যদিবসে পরিচালিত হবে। ৯ মাস থেকে ১০ বছরের কম বয়সী প্রায় ৭৫ হাজার ৭শ ৪০ জন শিশুকে ১ ডোজ হাম-রুবেলা টিকা দেয়ার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এ কার্যক্রম সফল ভাবে বাস্তবায়নে ১৩২ জন টিকাদানকারী ৬০জন সুপারভাইজার এবং ৭শ জন স্বেচ্ছাসেবী নিয়োজিত রয়েছে।


আরোও অন্যান্য খবর
Paris