বুধবার

১৭ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

৪ঠা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সর্বশেষ সংবাদ

ঐক্যবদ্ধ আওয়ামী লীগের বিকল্প নাই : সুজন

Paris
Update : বৃহস্পতিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০২০

তানোর প্রতিনিধি : রাজশাহীর তানোর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের (সম্ভাব্য) দলীয় প্রার্থী প্রসিদ্ধ ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক আবুল বাসার সুজন বলেন, রাজনৈতিক লক্ষ্যে পৌচ্ছাতে এবং বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাস্তবায়ন ও নৌকার বিজয় ঘটিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এবং জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরো শক্তিশালী করতে ঐক্যবদ্ধ আওয়ামী লীগের কোন বিকল্প নেই। অতীতের সব মানঅভিমান ভুলে সকল নেতাকর্মীকে ঐক্যবদ্ধভাবে নৌকার পক্ষে কাজ করার আহবান জানিযে তিনি বলেন, বিশ্ব পরিস্থিতির প্রেক্ষাপটে নিজেদের অস্থিত্ব রক্ষায় যেমন ঐক্যবদ্ধ বাংলাদেশের প্রয়োজন: তেমনি বাংলাদেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বের প্রতীক গণতন্ত্রের ধারক-বাহক আওয়ামী লীগকেও ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। অন্যথায় আওয়ামী লীগের পক্ষে তার রাজনৈতিক লক্ষ্যে পৌচ্ছা ও বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়ন করা কঠিন হবে।

আবুল বাসার সুজন তার কার্যালয়ে এই প্রতিবেদকের সঙ্গে একান্ত সাক্ষাতকারে এভাবেই জানালেন আওয়ামী লীগকে নিয়ে তার পরিকল্পনার কিছু কথা। বললেন আওয়ামী লীগকে জ্ঞানভিত্তিক সংগঠন হিসেবে গড়ে তোলায় তিনি আত্ম-নিয়োগ করবেন। তৃণমুল নেতাকর্মীদের মাঝে পৌচ্ছে দেয়ার চেষ্টা করবেন আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক দর্শন। তার মতে মূখে কেবল বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও স্বপ্নের কথা বললেই দায়িত্ব শেষ হয়ে যায় না। আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক দর্শন কি, অর্থনৈতিক কর্মসূচী তথা উৎপাদন, উন্নয়ন, বিনিয়োগ-কর্মসংস্থান এবং আধিপত্যবাদ-সম্প্রসারণবাদ কি ও তার ক্ষতির দিকগুলো সম্পর্কে স্পষ্ট বক্তব্য থাকতে হবে। তিনি আরো বলেন, আমরা যে স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বের নেই প্রশ্নে আপোষহীণ সে বিষয়টি সকল নেতাকর্মীদের হৃদয়ে প্রতিষ্ঠা করতে হবে।

তা ছড়িয়ে দিতে হবে তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মী ও সমর্থকদের মাঝে। বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কাছ থেকে আমরা কি পেয়েছি। তিনি বলেন, আমরা কেন আওয়ামী লীগ করি, অন্যদলের সঙ্গে আওয়ামী লীগের পার্থক্য কি, মানুষ কেন আওয়ামী লীগকে ভালোবাসে ও সমর্থন করে-এসব বিষয়ে তৃণমুল পর্যায় থেকে শুরু করে সকল নেতাকর্মীদের মাঝে সুস্পষ্ট ধারণা তথা দিকনির্দেশনা থাকতে হবে। তাহলে তারা দলের প্রতি আরও নিবেদিত হয়ে কাজ করতে পারবেন। আগামীতে ঐক্যবদ্ধ আওয়ামী লীগকে নিয়ে এলাকায় আওয়ামী লীগকে সাংগঠনিক ভাবে আরো শক্তিশালী, বেগবান ও সু-প্রতিষ্ঠিত করা হবে  তাহলে এই অঞ্চলে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে ইতিবাচক পরিবর্তন আসবে। আওয়ামী লীগ হলো অসাম্প্রদায়িক, গণতন্ত্র ও উন্নয়নের প্রতীক।

মানুষ উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতেই আওয়ামী লীগকে আগামীতেও রাষ্ট্র ক্ষমতায় এবং আসন্ন পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীকে তানোর পৌরসভার মেয়র দেখতে চাই। সাধারণ মানুষের ভাত ও ভোটের অধিকার রক্ষায় আওয়ামী লীগ নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে, আগামীতেও যাবে। আওয়ামী লীগ আগামীতে সাংগঠনিকভাবে আরও শক্তিশালী ও বেগবান করা হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, দলে অনুপ্রবেশকারী, হাইব্রিড ও মতলববাজদের চিহ্নিত করে তাদের ছাটাই ও দূর্দীনে যারা দলের সাংগঠনিক কর্মকান্ড গতিশীল করতে ভূমিকা রেখেছেন তাদের এবং প্রবীণ-ত্যাগী ও নিবেদিতপ্রাণ নেতাকর্মীদের আবারো সক্রিয়-মূল্যায়ন করতে হবে এবং আগামিতে যে নৌকা প্রতিক পাবে তার পক্ষে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে তাহলে নৌকার বিজয় কেউ ঠেকাতে পারবে না ইনশাল্লাহ্।

তিনি বলেন, তিনি বিজয়ী হলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ও তার প্রতিনিধি স্থানীয় সাংসদ আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধুরীর সহাতায় প্রথমেই পৌরসভার মাস্টার প্ল্যান তৈরী করে তানোরকে মডেল পৌরসভাকে মডেল পৌরসভায় উন্নীত করবেন। শিক্ষা- স্বাস্থ্য, স্যানিটেশান-বিশুদ্ধ খাবার পানি, নারীর ক্ষমতায়ন-কুটিরশিল্প,ড্রেনেজ ব্যবস্থার আধুনিকায়ন-যোগাযোগ, অবকাঠামো, বিদ্যুৎ ও বিনোদনকেন্দ্র নির্মাণে অগ্রাধিকার দিবেন। পৌরসভার উন্নয়ন নিশ্চিত করতে তিনি নৌকার বিজয় ঘটাতে সকল নেতা ও কর্মী-সমর্থকদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে নৌকার পক্ষে কাজ করার আহবান জানিয়ে বলেন, প্রার্থী যেই হোক ভোট চাই নৌকায়।


আরোও অন্যান্য খবর
Paris