এফএনএস : এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের সংশোধিত নীতিমালায় ‘সহকারী অধ্যাপক’ পদটি বাতিল করার প্রতিবাদে রাজধানীতে মানববন্ধন করেছেন শিক্ষকদের একাংশ। গতকাল সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ‘পদোন্নতি বঞ্চিত প্রভাষক সমাজ’-এর ব্যানারে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। মানববন্ধনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন আন্দোলনকারীরা।

বক্তব্যে বলা হয়, গত ২৩ নভেম্বর এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের নীতিমালা ও জনবল কাঠামো সংশোধন করে খসড়া প্রকাশ করা হয়েছে। সংশোধিত নীতিমালায় উচ্চমাধ্যমিক বা সমমান প্রতিষ্ঠানে সহকারী অধ্যাপক পদ বিলুপ্ত করে ‘জ্যেষ্ঠ প্রভাষক’ পদ সৃষ্টির প্রস্তাব করা হয়েছে। এ প্রস্তাবের ফলে বেসরকারি এমপিওভুক্ত প্রভাষকরা চরমভাবে হতাশ হয়ে পড়েছেন। আবার জ্যেষ্ঠ প্রভাষক পদ সৃষ্টি করা হলেও উচ্চমাধ্যমিক বা সমমানের প্রতিষ্ঠানে উপাধ্যক্ষ বা অধ্যক্ষ পদে তাদের আবেদনের সুযোগ রাখা হয়নি।

ফলে একজন প্রভাষকের যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও সহকারী অধ্যাপক পদ না পাওয়ায় উপাধ্যক্ষ বা অধ্যক্ষ পদে আবেদন করতে পারবে না। এ বিষয়ে সংগঠনটির প্রধান সমন্বয়কারী জহিরুল ইসলাম বলেন, আমরা আজকে এখানে দাঁড়িয়ে পুনরায় নীতিমালা পরিবর্তনের দাবি জানাচ্ছি। প্রভাষক সমাজের দাবি জ্যেষ্ঠ প্রভাষক পদ বাতিল করে সহকারী অধ্যাপক পদ বহাল রাখা হোক। মানববন্ধনে সংগঠনটির মিডিয়া সমন্বয়কারী মোহাম্মদ আলী, প্রভাষক রতন কুমার সরকার, আবদুল হালিম, মনিরুল ইসলাম ও বাংলাদেশ বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারী ফোরামের সহ-সভাপতি মোদাচ্ছির আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল ইসলাম মাসুদ, প্রচার সম্পাদক মতিউর রহমান দুলাল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।